গণিতে ভালো না হলে কি কম্পিউটার প্রোগ্রামিং কঠিন লাগবে?

এককথায় যদি এর উত্তর দিতে হয় তবে আমি বলবো হ্যাঁ, একজন ভালো প্রোগ্রামার হতে হলে একটি গাণিতিক, যৌক্তিক মানসিক গঠন জরুরি। প্রোগ্রামিং এর প্রথম ধাপ হলো একটি সমস্যা সমাধানের ধাপ(step)গুলি চিহ্নিত করা অর্থাৎ একটি এলগোরিদম নির্মাণ করা এবং পরবর্তীতে সেই এলগোরিদম অনুযায়ী একটি প্রোগ্রাম লিখে সেই সমস্যার সমাধান করা।
আর এই এলগোরিদম গঠন করা, সেটির নির্ভুলতা প্রমাণ করা, সেটি কতটা সময় বা resource ব্যবহার করছে ইত্যাদির গণনা করা এই সবকিছুর জন্য গাণিতিক দক্ষতা আবশ্যক।
একটি ভাষায় সাহিত্যসৃষ্টির জন্য যেমন সেই ভাষা জানাই পর্যাপ্ত নয়, তেমনি প্রোগ্রামিং করার জন্য প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানা অত্যাবশ্যক কিন্তু যথেষ্ট নয়। প্রোগ্রামিং ভাষা জানার পাশাপাশি চিন্তাভাবনাকে নির্ভুলভাবে এবং কার্যকরীভাবে (accurately and optimally) প্রোগ্রামে রূপান্তরিত করতে পারাও একান্ত জরুরি, আর এর জন্যে গাণিতিক চিন্তা চেতনার প্রয়োজন আছে বৈকি!
আমার কাছে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং তো পুরোটাই লজিক। লজিকে গড়বড় থাকলে জীবনেও এক লাইন কোড লিখা যাবে না। আর যদি কোনভাবে আপনি প্রোগ্রাম লিখে চালিয়েও দেন, কোনদিনও কাউকে বোঝাতে পারবেন না কি করেছেন, আর কিভাবে করেছেন।
হ্যা, আমিও জানি যে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং শিখতে হলে যতটুক অঙ্ক শিখতে হয় সেটা হচ্ছে যোগ, বিয়োগ, গুন ভাগ এবং মডুলো ভাগ। কিন্তু তার মানে কি আমরা এরমধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখবো নিজেকে? কতদিন চলবে এভাবে? যদি কোনদিন কোন কাজের জন্য গনিতের অজানা জিনিসটি নিয়ে উঠে পড়ে লাগতে হয়, তাহলে প্রোগ্রামিং ফেলে প্রথমে একজনের সাহায্য নিতে হবে যিনি ওই অঙ্ক করতে পারদর্শী। ঠিক তেমনভাবে, যেমনভাবে একজন শুধু গনিত জানা মানুষ, বিন্দুমাত্র অভিজ্ঞতা ছাড়া সহজে কোড লিখতে পারবেন না।
একজন ব্যাক্তি গণিতে ভালো বলতে মূলত যা বুঝায় তা হলো, তিনি একটু জটিল ভাবে ভাবতে পারেন।এছাড়া যেমন ধরেন কোনো ব্যাক্তি, ফরিয়ার সিরিজ বা বেশেলস বা ইউলার সিরিজের গণিত গুলো পারেন না, তার মানেই কিন্তু সে গণিতে খারাপ না বা প্রোগ্রামিং করার অযোগ্য না। *
গণিতে আপনি ভালো মানে, প্রোগ্রামিং এর জটিল কঠিন সমস্যা গুলো চিন্তা ভাবনা করতে সময় কম লাগবে।আর একটু দুর্বল মানে সময় টা বেশি লাগবে। কোনোকিছুই অসম্ভব না, প্রতিনিয়ত চেষ্টা এবং চর্চা করলে তথাকথিত গণিতে খারাপ করা ব্যক্তিও ভালো করতে পারবে প্রোগ্রামিংয়ে।
Web-development বা mobile application (front-end) development এর মতো কিছু কিছু ক্ষেত্রে হয়তো গাণিতিক প্রশিক্ষণ ছাড়াও একজন সফল পেশাগত প্রোগ্রামার হওয়া সম্ভব, কিন্তু আমার মতে একজন বহুমুখী (versatile) প্রোগ্রামারের গাণিতিক জ্ঞান থাকা প্রয়োজন।

You May Also Like

About the Author: রতন কুমার রায়

আমি ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে একজন পেশাদার ব্লগার । আমার জ্ঞান অনুযায়ী, আমি অন্যদের ফ্রিল্যান্সার সাহায্য করার চেষ্টা করি । আমি ২017 সাল থেকে ব্লগিং শুরু করেছি । আমি অ্যাফিলিয়েট বিপণন, সিপিএ বিপণন, এসইও, ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপমেন্ট এবং ওয়েব ডিজাইনও করি। আমি বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং বাজারে কাজ করি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *